শাক সবজির উপকারিতা

শাক সবজির উপকারিতা

আমরা বেশির ভাগ ক্ষেত্রে  শাক সবজির উপকারিতা ও অপকারিতা  জেনেই ভিটামিন ও খনিজ লবণ পাওয়ার জন্য খাই ।

যে কোন সবজির ভালো এবং খারাপ দুটি দিকই রয়েছে । যদি আমাদের জানা থাকে কোন সবজির কি উপকারিতা তাহলে

আমাদের শরীরের জণ্য সবজি হতে পারে বেশ পুষ্টিমান খাবার।

চলুন জেনে নেই শাকসবজির উপকারিতা সম্পর্কে :-

ফুলকপি :- ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে বেশ উপকারি এই সবজি এবং হৃদপিন্ড সুস্থ রাখে , দেহের প্রয়োজনীয় পুষ্টি চাহিদা পূরণ করে , হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে ।

কাঁকরোল :- এটিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এবং মিনারেল থাকে যা চোখের অনেক উপকার করে ,  কাঁকরোলে থাকে প্রচুর

পরিমাণ এনজাইম এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট , আয়রন , প্রোটিন এবং আশঁ এবং এটি কোলস্টেরল ও কমাতে বেশ উপকারি।

বিট:-  হাড় এবং দাঁত ভালো রাখে , যকৃৎ ভালো রাখতে সাহায্য করে , রক্তে হিমগ্লোবিন বাড়ায় ।

পাটশাক:-  এটিতে টিউমরি এবং ক্যান্সার রোধকারি উপদান রয়েছে , রাতকানা রোগ ও রক্ত পরিষ্কার রাখেতে  বেশ উপকারি,

শরীর ব্যাথা দূর করে , রুচি বাড়ায় এবং মুখের ব্যাথা ভালো করে ।

কচুর মুখি :- এনার্জি শরীরে ধরে রাখে এবং শরীরের ক্লান্তি ভাব দূর করে , খাদ্য হজম করতে বিশেষ উপকার করে , উচ্চ

রক্তচাপ কমায় , ত্বকের সৌন্দর্য রাখতে সাহায্য করে ।

কচুর লতি :- এটি ত্বক ও চুল ভালো রাখে , মস্তিস্ক এবং হাড়ের গঠন শক্ত করে এবং রোগ প্রাতরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ।

তেজপাতা :-  শরীরের রাবণ্য বাড়ায় , চর্মরোগ দূর করে , শরীরের দৃর্গন্ধ কমায় , মুখের রুচি বাড়াতে সাহায্য করে ।

শাকসবজির অপকারিতা : 

শাকসবজির যেমন উকারিতা রয়েছে তেমনি অপকারিতা রয়েছে তাই আমাদের সকলের উচিত শাকসবজির উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানা । চলুন জেনে নেই শাকসবজির অপকারিতা সম্পর্কে :

করলার অপকারিতা : – তিতা করলার উপকারিতা শুনছেন অনেক এবার কিছু অপকারিতা জানুন । গর্ভপাতরে ঝুঁকি বেড়ে যায় , অনিয়মিত হার্ট বিটের কারণ হতে পারে । ডায়াবিটেক এর ঔষধের সাথে নিয়মিত করলা খেলে শার্শ্ব প্রতিক্রিয়া  হতে পারে।

আমরা যদি আমাদের প্রতিদিন এর খাদ্য তালিকায় সামান্য পরিমান ভেজষ শাক এবং সবজি রাখি তাহলে আমাদের

সুস্থ থাকা হয়ে উঠবে আরো সহজ । শাক সবজির উপকারিতা রয়েছে তেমনি এর কিছু অপকারিতা রয়েছে তাই আমরা যদি

এর গুনাগুন জানি তাহলে এর পুষ্টিগুন ভালো পাবে পাবো ।